বাঙালির বেনারস! ঘুরে আসুন উত্তারপ্রদেশ এর প্রাচীন শহর বারাণসী।

প্রাচীন ভারতের অন্যতম নিদর্শন বারানসি গঙ্গার পশ্চিম তীরে বরুনা ও ওসি নদীর  মিলনস্থলে অবস্থিত এটি ভারতের একটি প্রাচীনতম শহর। অতীতের কাশি আজকে বারানসি হিন্দু ধর্মের পবিত্রতার প্রতীক। বেনারস যার ঘাট খুব পবিত্রতম, বেনারসি শাড়ি যা খুব ফেমাস,বেনারসি পান যা খুব জনপ্রিয় ।এখানকার  গঙ্গা ঘাট মন্দির ও সঙ্গীত একাধিক পরিবেশ উপভোগ করতে দেশ-বিদেশের বহু পর্যটক এখানে ভ্রমণে আসেন। মূলত শীতের সময় পর্যটকরা এখানে ভিড় করেন কিন্তু সারা বছরই এখানে পর্যটকদের ভ্রমণ করতে আস্তে দেখা যায।এবং  নভেম্বের থেকে মার্চ পর্যন্ত বিভিন্ন উৎসবের আয়োজন হয়। দেশ-বিদেশের বহু মানুষ এখানে ভ্রমণে আসেন। কলকাতা থেকে যাওয়ার জন্য আপনার কাছে দুটো অপশন আছে আপনি যদি ট্রেনে করে যেতে চান তাহলে কলকাতার প্রধান রেল স্টেশন হাওড়া, শিয়ালদা, কলকাতা রেলস্টেশন থেকে প্রায় 10 থেকে 14 ঘন্টায় পৌছে যাবেন। আর আপনি যদি আকাশপথে বারানসি পৌঁছাতে চান তাহলে কলকাতা দমদম এয়ারপোর্ট থেকে প্রায় এক থেকে দুই ঘন্টার মধ্যেই পৌছে যাবেন। তারপর সেখান থেকে ট্যাক্সিতে করে প্রায় এক ঘন্টা যাত্রা করে বেনারস মূল শহরে পৌঁছে যাবেন।  বারাণসীতে থাকার জন্য 500 টাকা থেকে শুরু করে অনেক নামী দামি হোটেলের বাবস্থা রয়েছে। আপনি চাইলে অনলাইন বুকিং করে রাখতেও পারেন।

  পবিত্র গঙ্গা নদীর ধারে  আসি ঘাটের আরতি দিয়ে সকালটা শুরু করুন। সকালের সূর্যোদয় এর অভাবনিয় সৌন্দর্য চাক্ষুষ করুন এক কাপ চায়ের সাথে। জীবনের সবচেয়ে স্মরণীয় অভিজ্ঞতা অর্জন করুন  গঙ্গায় নৌকা বিহার  করে। জন প্রতি ১০০ থেকে ১৫০ টাকা পরবে। নৌকা বিহারের সময় আপনি দেখতে পাবেন গঙ্গার তীরে গড়ে ওঠা একাধিক ঘাট,মন্দির ও প্রাসাদ এছাড়া দেখতে পাবেন ভোরবেলা সূর্যোদয়ের সময় হাজারো ভক্তের পুণ্য স্নান ও গঙ্গার ঘাট সহ সমগ্র বারানসি অসাধারণ দৃশ্য।

এছাড়া  আরো অনেক  অসাধারণ সুন্দর পরিবেশ উপভোগ করতে পারেন  পায় হেঁটে। এরপর চলে যান বিখ্যাত কাশী বিশ্বনাথ মন্দির দর্শন এর জন্য, পুরানে উল্লেখিত এই মন্দির টি ভগবান শনির উদ্যেশে নির্মিত।  ইতিহাস থেকে আমরা জানতে পারি এই  মন্দির টি অনেকবার ধ্বংস এবং পুনর্নির্মাণ করা হয়েছে। বর্তমান মন্দিরটি  ইন্দোরের মহারানী  1777 সালে নির্মাণ করেন! অথবা একটি নৌকা ভাড়া করে।

  পরদিন সকালে বেরিয়ে পড়ুন ভারতের কয়েকটি জনপ্রিয় মন্দিরের দর্শন করার জন্নে। বারাণসীতে সর্বত্রই বিভিন্ন মন্দির দেখতে পাবেন এর মধ্যে বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় মন্দির হল সংকটমোচন মন্দির যা  ভগবান হনুমানের উদ্দেশ্যে নির্মিত। তুলসী মানস মন্দির জেখানে স্রি রামের  বিগ্রহ ছারাও আকর্ষণীয়  এখান কার দেওয়াল জেখানে খদাই করা আছে রামচরিত মানস এর এর বিভিন্ন পদ। তারপর চলে যান ব ভারত মাতা মন্দির এ এই মন্দিরের ভেতরে দেখতে পাবেন মার্বেল দিয়ে তৈরি আখন্দ  ভারতের মানচিত্র। ভারত মাতা মন্দির  থেকে প্রায় 6 কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত বেনারস হিন্দু ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাস এর ভেতরে বিশানাথ মন্দির যা  ভগবান শিবের উদ্যেশে নির্মিত।

মন্দির পরিদর্শন শেষে ঘুরে দেখতে পারেন জনপ্রিয় বারানসি হিন্দু হ ইউনিভার্সিটি। ইউনিভার্সিটি টি লঙ্কা শহরে আবস্থিত। ভেতরে অনেক খাবারের দোকান পেয়ে যাবেন। ক্যাম্পাস এর ভেতরে অনেক শান্ত শীতল পরিবেশ দেখতে দেখতে অনেকটা সময় কেটে যাবে।

বারানসি থেকে মাত্র 10 কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত ভারতের দর্শনীয় স্থানগুলোর মধ্যে একটি হল সারনাথ যেখানে প্রথম গৌতম বুদ্ধ ধর্ম প্রচার করেছিলেন। এটা খুব শান্তির একটা জায়গা।এখানে মিউসিউম রয়েছে কিন্তু ভেতরে ক্যামেরা আলাও করে না। এখানে হরিণ দেখতেও পেয়ে যাবেন।

বারানসিতে অনেক শপিং মল রয়েছে যেখানে আপনি কেনাকাটা আর মুভি দেখতে পারেন।

বারানসি উত্তরপ্রদেশে অবস্থিত  যেখানে রেল স্টেশন, বাস স্ট্যান্ড ও ও বিমানবন্দর রয়েছে। ভারতের প্রায় সব বড়ো শহর থেকে বাস, ট্রেন অথবা বিমান পরিবহণ দ্বারা এখানে আসা যায়। স্টেশন থেকে  বাইরে বেরোলেই বেনারস এ যেকোনো জায়গার জন্যেই অটো টোটো বা ভাড়া গাড়ি পেয়ে যাবেন।