মুখের ট্যান রিমুভ করার ঘরোয়া টোটকা

শীত হোক বা গ্রীষ্ম কাল ট্যান এর সমস্যায় প্রায় সবাই ভোগেন। ট্যান পড়ে ত্বকের স্বাভাবিক রং হারায়, বলিরেখা পড়ে, স্বাভাবিক উজ্জ্বলতাও কমিয়ে স্কিন কে কালো করে তোলে। আর কর্ম ব্যস্ত জীবনে পার্লার এ গিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা নষ্ট করে ত্বকের যত্ন করা সম্ভব হয়ে ওঠেনা। তাই আপনি বাড়িতে বসেই আপনার সময় মত কয়েকটি সহজ পদ্ধতি অনুসরণ করে সারা শরীরে টান তুলে ফেলতে পারেন। ঘরোয়া উপায়ে কী ভাবে ত্বকের ট্যান দূর করবেন একনজরে দেখে নিন

মুখের ট্যান রিমুভ করুন ঘরোয়া পদ্ধতিতে.....

১. টমেটো: একটা অর্ধেক কাটা টমেটো মুখে ও গলায় ২ থেকে ৩ মিনিট ধরে হালকা ঘষে নিন।টোম্যাটোর মধ্যে লাইকোপেন নামে একটি এনজাইম রয়েছে যা ন্যাচারাল সানস্ক্রিনের কাজ করে, এছাড়া টোম্যাটোতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা ট্যান দূর করতে সাহায্য তো করেই, উপরন্তু ত্বকে পুষ্টিও যোগায়।


২. গাজর: শুষ্ক এবং ট্যান পড়া ত্বকে গাজর ভাল করে পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর মোটামুটি শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা জলে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এতে মুখের ট্যান দূর হবে এবং ত্বক আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।


৩. দুধ ও হলুদ:  এর মিশ্রণ বানিয়ে ব্যবহার করুন। বিশেষ করে ভারতীয় কমপ্লেকশনকে উজ্জ্বলতর করে তুলতে হলুদের জুড়ি নেই। কাঁচা হলুদবাটার সঙ্গে বেসন আর দই মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিয়মিত ব্যবহার করুন। দিন সাতেকের মধ্যেই ফারাকটা টের পাবেন।


৪. চালের গুঁড়ো ও দুধ:  পরিমাণ মতো মিসিয়ে স্ক্রাবিং করুন পুরো মুখে। এতে মুখের ব্ল্যাক হেডস গুলো দূর হয়ে যাবে। সপ্তাহে দুবার স্ক্রাবিং করুন এতে ট্যান দূর হবে।

.পেঁপে আর মধুর: পেস্ট করে নিন। তার মধ্যে মধু মিশিয়ে মুখে লাগান। তারপর শুকিয়ে গেলে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।পেঁপেতে থাকা প্যাপিন মরা কোষ দূর করে ত্বকের রং উজ্জ্বল করে তুলতে সাহায্য করে।

৬.মুসুর ডাল বাটা: আর সাথে টমেটো মিশিয়ে মুখে মাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। মুসুর ডাল খুব ভালো প্রাকৃতিক স্ক্রাবারের কাজ করে।

৭. আলুর রস কিন্তু টান তুলে ফেলতে খুবিই কার্যকরী। সারামুখে আলুর রস লাগাতে পারেন দু থেকে তিন বার লাগাতে পারেন। এতে মুখের উজ্জ্বলতাও বেড়ে যাবে।

 

৮. লেবুর রস আর গোলাপ জল একসাথে মিশিয়ে একটা প্যাক তৈরি তুলো দিয়ে মুখের বা শরীরের টান পড়া জায়গায় লাগিয়ে নিন আর মিনিটে দসেক বাদে ধুয়ে ফেলুন। লেবুর রস টান দূর করতে সাহায্য করে আর গোলাপ জল মুখের নমনিয়তা বজায় রাখে।


  
৯.শসা আর কাঁচা দুধ:  টান তোলায় খুব উপযুক্ত। আর এটা সব ধরনের ত্বকের জন্য উপযোগী। সসার রস বের করে সেটা দুধের সাথে মিশিয়ে তুলোর  সাহায্যে মুখে এপলাই করুন। সারাদিনে দুইবার ব্যবহার করুনরোদে পোড়া ত্বকের পুরোনো ঔজ্জ্বল্য ফিরিয়ে আনতে শসার রস দারুণ কার্যকর। শসা কুরে রস বের করে নিন, তার পর তুলো দিয়ে লাগান পোড়া আংশে। 

১০.টক দই: ভাল করে ফেতিয়ে নিয়ে রোজ সান্নের আগে ব্যবহার করুন। এতে এমন কিছু এঞ্জাইম আছে যা টান দূর করতে সাহায্য করে আর দাগ ছপ কমাতেও সাহায্য করে।

ট্যান রিমুভ করার পদ্ধতি শুরু করার পর কিন্তু আর রোদ লাগাবেন না। এই সময় ত্বক বেশি স্পর্শকাতর হয়ে থাকে। রোদ লাগলে লাভের চেয়ে ক্ষতির আশঙ্কাই বেশি। দরকারে ছাতা, টুপি, স্কার্ফ ব্যবহার করুন। বিনিয়োগ করুন খুব ভালো মানের কোনও সানস্ক্রিন লোশনেও।সারাদিনে ৭ থেকে ৮ গ্লাস জল পান করুন এতে শরীরের টক্সিন বের হয় আর ত্বক আদ্র থাকে। এতে ট্যান পড়ার আশঙ্কা কম হয়৷ সব সময় ছাতা নিয়ে বেরোন।